জেনে নিন অটল পেনশন যোজনার কি কি সুবিধা

Atal Pension Yojana
জেনে নিন অটল পেনশন যোজনার কি কি সুবিধা


Atal Pension Yojana :  অটল পেনশন যোজনা এই যোজনায় গত পাঁচবছরে বিশাল সাফল্য পেয়েছে । বিগত ২০১৫ সালে ৯ ই মে প্রধানমন্ত্রী এই যোজনার শুরু করেছিলেন যা আজ পাঁচবছর অতিক্রান্ত হয়েছে । এই প্রকল্পের মাধ্যমে ৬০ বছর বয়সের পর ১০০০ টাকা থেকে ৫০০০ টাকা পেনশনের ব্যবস্থা রয়েছে ।

এই প্রকল্পটির দেখাশোনা করে Pension Fund Regulatory and Development Authority । এখনও পর্যন্ত এই জজনায় প্রায় ২ কোটির উপর মানুষ অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন । শুধুমাত্র গতবছরেই এই যোজনায় যুক্ত হয়েছেন ৭০ লক্ষ মানুষ ।


অটল পেনশন যোজনা আসলে কি ?


দেশের গরীব মানুষের কথা ভেবে বিশেষত অসংঘটিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের কথা ভেবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার এই প্রকল্পের সূচনা করেন । যেকোন ভারতীয় নাগরিক যার বয়স ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হলে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারেন ।
আপনি এই যোজনায় অন্তর্ভুক্ত হলে ৬০ বছর বয়সের পর থেকে আপনি নিয়মিত পেনশন পাবেন । এই পেনশনের পরিমান ১০০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে । এই টাকার পরিমান নির্ভর করবে আপনি কি পরিমান টাকা জমা করছেন । অটল পেনশন যোজনায় অন্তর্ভুক্ত ব্যাক্তি মারা গেলে তার স্ত্রী বা স্বামী এই পেনশন দাবী করতে পারেন ! এবং স্বামী বা স্ত্রী মারা গেলে নমিনি এই পেনশন পাওয়ার অধিকারী হবে ।


অটল পেনশন যোজনায় আবেদন করতে কি কি প্রয়োজন ?


এই যোজনায় আবেদন করতে আপনার একটি সেভিংস ব্যাঙ্ক আকাউন্ট অথবা পোস্ট অফিসের সেভিংস আকাউন্ট , আধার কার্ড এবং একটি মোবাইল নম্বর থাকতে হবে । যদিও আধার কার্ড থাকা বাধ্যতামূলক নয় ।


অটল পেনশন যোজনায় কিভাবে আবেদন করবেন ?


যেকোনো ব্যাঙ্কে গিয়ে আপনাকে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে হবে । তার জন্য আপনার ব্যাঙ্কে একটি সেভিংস আকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক ।

এছাড়া অনলাইনেও আপনি এই যোজনার আওতায় আসার জন্য আবেদন করতে হবে । তার জন্য আপনার ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং থাকতে হবে । বেশকিছু ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং এর মাধ্যমে আপনাকে অটল পেনশন যোজনায় রেজিস্ট্রেশন করার সুবিধা দিয়ে থাকে ।

প্রথমে আপনাকে নেট ব্যাঙ্কিং অন করে সেখানে অটল পেনশন যোজনায় অপশনে ক্লিক করতে হবে ( SBI ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে এই অপশনটি E-SERVICE অপশনে ক্লিক করলেই দেখতে পাবেন । ) এরপর আপনাকে সেখানে আপনার যথাযথ তথ্য প্রদান করতে হবে ।তথ্য প্রদান করার পর আপনার বর্তমান বয়স অনুযায়ী আপনি প্রতিমাসে কত টাকা জমা দিতে চান তা নির্ধারন করতে হবে ।

প্রতিমাসে জমা দেওয়া টাকার পরিমান আপনি চাইলে পরে বাড়াতেও পারেন । তবে বছরে মাত্র একবারই এই পরিবর্তন করতে পারবেন । এরপর আপনার আপনার নমিনি ঠিক করতে হবে । অবিবাহিত হলে আপনি যাকে নমিনি করতে চান তার তথ্য দেবেন । আর বিবাহিত হলে আপনার স্ত্রী বা স্বামী নমিনি হিসেবে বিবেচিত হবেন ।


অটল পেনশন যোজনা সম্পর্কে আরও কিছু তথ্য


আপনি টাকা জমা দেওয়ার বিষয়টিকে আপনার পছন্দমত নির্বাচন করতে পারেন । আপনি চাইলে টাকা জমা দেওয়ার অন্তর মাসিক , ত্রৈমাসিক অথবা ষাণ্মাসিক করতে পারেন । তবে আপনি যেসময়ই নির্বাচন করেন না কেন আপনাকে সেই সময়ের মধ্যে টাকা জমা দিতেই হবে । আপনি চাইলে এই টাকা অটো ডেবিট করতে পারেন । অর্থাৎ আপনার ব্যাঙ্ক আকাউন্ট থেকে নির্দিস্ট সময় অন্তর স্বয়ংক্রিয়ভাবে কেটে নেওয়া হবে টাকা ।

আপনি যদি ৬ মাস টাকা জমা না দেন তাহলে আপনার আকাউন্টটি ডরম্যান্ট হয়ে যাবে । যদি একবছর জমা না দেন তাহলে আপনার আকাউন্টটি নিস্ক্রিয় হয়ে যাবে । এবং যদি ২ বছর জমা না দেন তাহলে আপনার আকাউন্টটি বন্ধ করে দেওয়া হবে ।


এই যোজনা সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে সরাসরি ব্যাঙ্কে যান অথবা নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে পড়ুন-

CLICK HERE TO KNOW THE DETAILS





অটল পেনশন যোজনার ফর্মটিকে ডাউনলোড করার জন্য নিচের DOWNLOAD বোতামে ক্লিক করুন -




CLICK HERE TO DOWNLOAD





CLICK HERE TO DOWNLOAD BANGLA CALENDER 2020


খবরটি শেয়ার করুন







রাজ্য সরকার তথা কেন্দ্রীয় সরকারের সকল প্রকল্পের বিস্তারিত তথ্য পেতে "কর্মসাথী প্রকল্প" নামে অ্যাপটিকে ডাউনলোড করুন । অ্যাপটি গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন - CLICK HERE 



আমাদের তৈরি প্রচেষ্টা প্রকল্প APP টিতে আপনি প্রচেষ্টা প্রকল্প সম্বন্ধিত সমস্ত তথ্য পাবেন । তবে এটি ব্যক্তিগত উদ্যোগে তৈরি । প্রচেষ্টা প্রকল্প সম্বন্ধিত তথ্য সরবরাহ করায় অ্যাপটির মূল উদ্দেশ্য । অ্যাপটিকে ডাউনলোড করতে নিচের নিচের বোতামে ক্লিক করুন -



  MOST IMPORTANT LINKS    



শিক্ষা সঙ্ক্রান্ত সকল খবর পেতে - CLICK HERE

To get updated in the English language - CLICK HERE

মাধ্যমিক ও উচ্চ-মাধ্যমিক সঙ্ক্রান্ত সকল সাহায্য পেতে - CLICK HERE

সব খবর সবার আগে পেতে - CLICK HERE 











1 Comments

আপনার মতামত জানাতে কমেন্ট করুন

Post a comment

আপনার মতামত জানাতে কমেন্ট করুন

Previous Post Next Post